গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় মাদক ব্যবসায়ীর সাথে পুলিশের বন্দুক যুদ্ধে পুলিশসহ ৬ জন আহত হয়েছে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত বুধবার গভীর রাতে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল আউয়ালের নেতৃত্বে পুলিশের একটি বিশেষ টিম উপজেলার ছাপরহাটি ইউনিয়নের পূর্ব ছাপড়হাটী গ্রামে শোভাগঞ্জ-ছাপড়হাটি সড়কে মাদক মামলার আসামী ও মাদক ব্যবসায়ী শামীম ওসমান সরদারসহ মাদক ব্যবসায়ী চক্রকে গ্রেফতার করতে যায়। এসময় মাদক ব্যবসায়ীরা টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এসময় পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। ঘটনাস্থল থেকে ইয়াবা, তিনটি রাম দা ও ৭টি গুলির খোসা উদ্ধার করে পুলিশ। উভয়ের পক্ষের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী শামীম ওসমান সরদার এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল আউয়াল, এসআই আব্দুল বারী, কনস্টেবল আতিকুল ইসলাম, ডিবি এসআই শাহেনেওয়াজ, ডিবি কনস্টেবল নজরুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। আহতরা বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আহত মাদক ব্যবসায়ী শামীম ওসমান সরদার পৌর সভার ৩নং ওয়ার্ডের কামাল হোসেন সরদারের ছেলে। তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।
সুন্দরগঞ্জের ওসি এসএম আব্দুস সোবহান জানান, দীর্ঘদিন থেকে মাদক ব্যবসায়ি শামীম পলাতক ছিল। গত বুধবার রাতে মাদকসহ উপজেলার ছাপড়হাটী ইউনিয়নে প্রবেশ করলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করতে যায়। এসময় বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। শামীম পুলিশ হেফাজতে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।