চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে আল হাদি (২৮) নামের এক যুবককে বগুড়া থেকে অপহরণ করে আটকে রেখে পরিবারের কাছে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। অপহরণের দুই দিন পর হিলি থেকে তাকে উদ্ধার করে এবং রুমা বেগম (২৮) নামের এক অপহরণকারীকে আটক করা হয়েছে।

শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটায় হিলি থেকে তাকে উদ্ধার করা হয় । উদ্ধার হওয়া ওই যুবক সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার আসানবাড়ী গ্রামের এনছাব আলীর ছেলে। আটক রুমা বেগম জয়পুরহাটের পাঁচবিবি উপজেলার উত্তরগোপালপুর গ্রামের মিন্টু মিয়ার স্ত্রী।

উদ্ধার হওয়া আল হাদি জানান, একটি জাতীয় পত্রিকায় দেশবন্ধু কন্সট্রাকশন ফার্মে সিভিল ইঞ্জিনিয়ার পদে লোক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেখে বিজ্ঞপ্তিতে দেওয়া নম্বরে গত শুক্রবার যোগাযোগ করলে তাদের অফিস বগুড়ার চারমাথায় আসতে বলে। পরে সিরাজগঞ্জ থেকে বগুড়ার চারমাথায় আসলে তাদের কাজ চলছে হিলিতে এমন কথা বলে, আমাকে হিলিতে নিয়ে আসে। এর পরে কৌশলে আমাকে একটি রুমে হাত পা বেঁধে ফেলে রেখে অনেক মারধর করে এবং আমার মোবাইল দিয়ে আমার পরিবারের কাছে ফোন করে দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

হাকিমপুর সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আখিউল ইসলাম বলেন, গতকাল সিরাজগঞ্জ থেকে কয়েকজন মানুষ থানায় এসে অভিযোগ করেন তাদের ভাইকে অপহরণকারী চক্র হাকিমপুরে আটকে রেখেছে এবং ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছে। তাদের অভিযোগ আমলে নিয়ে অভিযান পরিচালনা করে রুমা নামের এক অপহরণকারী চক্রের সদস্যকে গ্রেফতার করা হয় ও ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় মূল হোতা মিন্টুসহ অন্য অপরাধীদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যহত রয়েছে।