কুড়িগ্রাম পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম’র সচেতনতামুলক প্রচারনা ও কঠোর হুশিয়ারির পর কুড়িগ্রাম জেলা পুলিশ মাদকের পাশাপাশি আইপিএল জুয়া বিরোধি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করছে। পুলিশের অভিযানে বাজি ধরা অর্থ, টিভি ও আলামত সহ জুয়াড়িদের আটকের খবর পাওয়া গেছে।
সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর ও রাজারহাট থানা পুলিশের পৃথক জুয়া বিরোধী অভিযানে ১৯ জন আটক হয়েছে। এসময় বাজির টাকা, মোবাইল সেট ও আইপিএল খেলা দেখানোর টিভি জব্দ করেছে পুলিশ।
রাজারহাট থানার আইপিএল জুয়া বিরোধী অভিযানে জনগনের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে ১১ জনকে আটক করে পুলিশ। রাজারহাট সদর ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের সুন্দর গ্রাম পুটিকাটা স্কুল সংলগ্ন রতনের চায়ের দোকানে রাজারহাট থানা পুলিশ আইপিএল খেলা চলাকালীন সময় ১১ জনকে দোকানের ভিতর টিভির সামনে বাজি ধরা অবস্থায় আটক করেছে বলে জানা যায় ।রাজারহাট থানা অফিসার ইনচার্জ রাজু সরকার আইপিএল জুয়া বিরোধী অভিযানে ১১ জন আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, টেলিভিশন জব্দ করা হয়েছে। মামলা ও জেল হাজতে প্রেরনের প্রক্রিয়া চলছে।

অপরদিকে একই সময় উলিপুর থানা পুলিশের আইপিএল জুয়া বিরোধী অভিযানে ৮ জন কে আটকের খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে। সোমবার রাতে এস আই রাসেলের নেতৃত্বে উলিপুর উপজেলার থেতরাই ইউনিয়নের বখসীরহাট বাজারে একটি ইলেক্ট্রনিক্সের দোকানে আইপিএল বাজি খেলার আলানত সহ তাদের আটক করে পুলিশ। এসময় বাজি খেলার নগদ অর্থ, মোবাইল সেট ও টেলিভিশন জব্দ করা হয়।উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ( ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেন আইপিএল জুয়া বিরোধী পুলিশি অভিযানে তাদের আটকের কথা স্মীকার করেন। আটক জুয়াড়িদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে জানান।